অনির্বাচিত সরকারের বিরুদ্ধে দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ: মেয়র জি কে গউছ

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ বলেছেন- অনির্বাচিত অবৈধ আওয়ামীলীগ সরকারের বিরুদ্ধে আজ দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ। দেশের গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নেই। ইতিহাস প্রমাণ করে, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের বিজয় সুনিশ্চিত। কিন্তু আওয়ামীলীগ আবারও পাথানো নির্বাচনের চেষ্টা করলে জনগনকে সাথে নিয়ে তা প্রতিহত করা হবে। কোনো অবস্থাতেই বিএনপিকে বাহিরে রেখে বাংলাদেশে কোন নির্বাচন হবে না, করতে দেয়া হবে না। গণআন্দোলনের মুখেই অবৈধ আওয়ামীলীগ সরকার নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে বাঁধ্য হবে। আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে। তারেক রহমানের মামলাও প্রত্যাহার করতে হবে।

তিনি মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া, পইল ও লস্করপুর ইউনিয়ন বিএনপির প্রতিবাদ সভায় এসব কথা বলেন।
মেয়র জি কে গউছ বলেন- নির্বাচন থেকে দুরে রাখতেই মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়া হয়েছে। সারাদেশে হাজার হাজার বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গায়েবী মামলা দেয়া হচ্ছে। পুলিশ পাহারায় একদল শহরে মিছিল করছে, আরেকদলকে রাস্তায় নামতে দেয়া হচ্ছে না, এই পুলিশ প্রশাসন দিয়ে হবিগঞ্জে কোন সুষ্ঠ নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। দেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। প্রশাসনের প্রতি মানুষের আস্তা নেই। মানুষের বাক-স্বাধীনতা নেই, মৌলিক অধিকার নেই। তাই নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই দেশে সুষ্ঠ নির্বাচন সম্ভব।

সদর উপজেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আজিজুর রহমান কাজলের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম আহ্বায়ক আজম উদ্দিন ও কাজী শামছু মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন- সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, হাজী মতিন, এডভোকেট মইনুল হক দুলাল, বিএনপি নেতা এডভোকেট আফজাল হোসেন, সৈয়দ আজহারুল হক বাকু, মহসিন সিকদার, গীরেন্ড চন্দ্র রায়, বাবর আলী, ফরিদ মিয়া, আমিনুল ইসলাম ফাঠিক, ফারুক মিয়া, মোস্তফা মিয়া, সোহেল মিয়া, কামাল চৌধুরী, মখলিছ মিয়া, আফরোজ মিয়া প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *