#  বানিয়াচঙ্গে প্রতিবন্ধীর ভাতা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ প্রমানিত ॥ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে ইউপি সদস্য ও সমাজকর্মীর বিরুদ্ধে #  নবীনগরের প্রতিবন্ধী জিতেন্দ্র সরকার সমাজের দয়ালু মানুষের কাছে সহযোগিতা চেয়েছেন #  ৬ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ মুক্ত দিবস ১৯৭১ সালে এইদিনে নবীগঞ্জ মুক্ত হয়েছিল #  নবীগঞ্জে ২৮তম জাতীয় প্রতিবন্ধি দিবস পালিত #  ঘুষের টাকাসহ সাব-রেজিস্ট্রার আটক #  প্রতি উপজেলায় প্রতিবন্ধী সেবা কেন্দ্র চালু হবে : প্রধানমন্ত্রী #  খালেদা জিয়ার জামিন দাবিতে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের এজলাসে অবস্থান #  বানিয়াচঙ্গে প্রতিবন্ধীর ভাতা ছিনিয়ে নিলেন সমাজসেবা কর্মকর্তা ও ইউপি সদস্য #  রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে আলোচনা হবে : সেনাপ্রধান #  কেজিতে ৯ টাকা কমানো হয়েছে সারের দাম : কৃষিমন্ত্রী #  নবীনগরে চলন্ত ট্র্যাক্টর থেকে পড়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু #  মেলান্দহে টিকিট কালো বাজারির দায়ে দুই ভাইর জরিমানা #  বিকালে আ’লীগের জাতীয় কমিটির সভা #  শিক্ষক লাঞ্চনাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে বানিয়াচং জনাব আলী কলেজ উত্তাল

ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে জনতার হাতে ৩ পুলিশ সদস্য ধরা

aa-5de00007be28a

সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের সখীপুরে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে তিন পুলিশ সদস্যকে আটক করেছে স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার হাতীবান্ধা ইউনিয়নের হতেয়া-রাজাবাড়ী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

আটকরা হলেন- এএসআই রিয়াজুল, কনস্টেবল গোপাল সাহা ও রাসেল। তারা টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বাঁশতৈল ফাঁড়িতে কর্মরত।

রাত সাড়ে ৯টায় এ খবর লেখা পর্যন্ত স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা ওই পুলিশ সদস্যদের আটক করে রেখেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, সন্ধ্যা ৬টার দিকে মির্জাপুর থানাধীন বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির তিন সদস্য সাদা পোশাকে সখীপুর উপজেলার হাতীবান্ধা ইউনিয়নের হতেয়া-রাজাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায় আসে। হতেয়া ভাতকুড়া এলাকার মো. ফরহাদের ছেলে দিনমজুর মো. বজলু মিয়ার (২৬) পকেটে ইয়াবা ঢুকিয়ে দিয়ে তাকে জোর করে তাদের সিএনজি চালিত অটোরিকশায় তুলে নেয়। এ সময় বজলু চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ওই অটোরিকশা আটক করে। পরে বজলু উপস্থিত লোকজনকে বলেন, ‘পুলিশ আমার পকেটে ইয়াবা ঢুকিয়ে দিয়ে অটোরিকশায় তুলেছে।’ এ ঘটনা শোনার পর উত্তেজিত জনতা ওই তিন পুলিশকে আটক করে তাদের পকেট তল্লাশি করে কয়েক প্যাকেট ইয়াবা উদ্ধার করে। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা ওই তিন পুলিশকে গণপিটুনি দিয়ে একটি দোকান ঘরে আটকে রেখে সখীপুর থানা পুলিশকে খবর দেয়।

সখীপুর থানার ওসি মো. আমির হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে সখীপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এএইচএম লুৎফুল কবিরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

মির্জাপুর থানার ওসি মো. সায়েদুর রহমান বলেন, ঘটনাটি শুনে এসআই ফয়েজের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে একদল পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email