কথা রাখলেন অনন্ত জলিল

কথা ছিল ‘দ্য স্পাই : অগ্রযাত্রার মহানায়ক’ নামে একটি ছবি তৈরি করবেন চিত্রনায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে নতুন মুখেরও সুযোগ দেবেন।

সে লক্ষে নতুন মুখের সন্ধানে দেশব্যাপী ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ নামে একটি প্রতিযোগিতা আয়োজন করেন। প্রতিযোগিতাটির ফাইনালও হয়। ফাইনালে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বেশ কয়েকজন নতুন মুখ নির্বাচিত হন।

ফাইনাল পরবর্তী ছবিটি নির্মাণের কথা থাকলেও চলচ্চিত্রের মন্দাবস্থাসহ বিভিন্ন কারণে সেটি আর নির্মাণ করা হয়নি। তবে ছবিটি নির্মাণ করবেন না এমন কোনো ঘোষণাও দেননি তিনি।

এর মাঝে ধর্মে কর্মে মনোনিবেশ করেন অনন্ত। তাই চলচ্চিত্র থেকে বেশ কিছুদিন দূরে ছিলেন। কিন্তু বিশ্বব্যাপী ইসলামের অপপ্রচার ও জঙ্গিবাদ থেকে তার মনে হলো এর বিরুদ্ধে কিছু একটা করা দরকার।

জঙ্গিবাদকে ইসলাম ঘৃনা করে এ বিষয়টি সবাইকে দেখানো দরকার। সেই চিন্তা থেকে এ ধরণের একটি ছবি নির্মাণের কথা তার মাথায় আসে। পাশাপাশি ‘দ্য স্পাই’ নামে একটি ছবি নির্মাণের ঘোষণাও ছিল আগে, যেখানে ট্যালেন্ট হান্ট থেকে নির্বাচিতদের সুযোগ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তিনি।

সেই কথা রাখতেই এবার নতুন করে ‘দিন : দ্য ডে’ নামে অন্য একটি ছবি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিলেন। এ ছবিটি জঙ্গিবাদ ও ইসলাম এক্সট্রিমিদের মধ্যে যে ভূল ধারণা রয়েছে সেগুলো তুলে ধরার চেষ্টা করবে।

এ সিদ্ধান্ত থেকে ইরানের সঙ্গে যৌথভাবে ছবিটি নির্মাণের প্রস্তুতি নিয়েছেন অনন্ত। এ ছবিতেই ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ থেকে নির্বাচিতদের অভিনয়ের সুযোগ দিতে চান তিনি। এবার তার দেয়া প্রতিশ্রুতি রাখলেন অনন্ত।

শনিবার রাজধানীতে তার ইকবাল রোডস্থ বাসায় ট্যালেন্ট হান্ট থেকে নির্বাচিত কয়েকজনকে ডেকে নিয়ে তাদেরসহ নির্বাচিত অন্যদেরও ‘দিন : দ্য ডে’ ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ দেয়ার কথা জানিয়েছেন অনন্ত।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দ্য স্পাই ছবিতে তাদের নিয়ে কাজ করার কথা ছিল। কিন্তু চলচ্চিত্রের যে অবস্থা ছিল বা এখনও বিরাজ করছে সে অবস্থায় নতুন ছবি নির্মাণ করার ঝুঁকি নেয়াটা সম্ভব নয়। এদিকে যারা নির্বাচিত হয়েছে তাদের নিয়ে ছবি বানাবো বলে কথাও দিয়েছিলাম। আমার মনে হয়েছে এই প্রতিশ্রুতি রাখা উচিৎ। নাহলে ওরা কষ্ট পাবে। সে চিন্তা থেকেই দিন দ্য ডে ছবিতে তাদেরকে অভিনয়ের সুযোগ দিচ্ছি। কয়েকজনকে ডেকে সেটাই জানিয়েছি। আশা করছি ভালো একটি ছবি হবে।

এদিকে ‘দিন : দ্য ডে’ ছবিটির শুটিং ও অভিনেতা-অভিনেত্রী নির্বাচন নিয়ে কথা বলতে গতমাসে ইরান গিয়েছিলেন অনন্ত। সেখানেই ছবির শুটিং, পরিচালক এবং পাত্রপাত্রী চূড়ান্ত করেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ছবিটি পরিচালনা করবেন ইরানি খ্যাতনামা পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম। ছবির কাহিনী ইরান, বাংলাদেশ, লেবানন ও সিরিয়াকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে। এ ছবিতে ইরানের প্রাচীন এবং ঐতিহাসিক নগরী ইস্পাহান এবং শিরাজ থেকে শুরু করে লেবাননের রাজধানী বৈরুতের অসাধারণ সব দৃশ্য তুলে ধরা হবে বলে জানিয়েছেন অনন্ত।

এতে অনন্ত জলিলের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে অভিনয় করবেন বর্ষা। আরও থাকবেন ইরানের প্রথম শ্রেণির জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। এছাড়াও লেবাননের বিখ্যাত কয়েকজন অভিনেতাও থাকবেন বলে জানা গেছে।

ছবিটি প্রসঙ্গে অনন্ত বলেন, তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল বা আইএস জঙ্গিদের বিশ্বব্যাপী বীভৎস সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে উচ্চকিত হবে ‘দিন : দ্য ডে’। পাশাপাশি ইসলামের নামে সব ধর্মীয় সন্ত্রাস এবং উস্কানির বিরুদ্ধে বক্তব্য থাকবে এতে। ছবিতে ইসলামের সার্বজনীন মানবিক দিকগুলো তুলে ধরা হবে।

ছবিটি নির্মাণের জন্য ইরানি পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজমের উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারসি ভাষা এবং সাহিত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুমিত আল রশিদ। বাংলা ভাষায় নির্মিত ছবিটি ফারসি, আরবি এবং ইংরেজিতেও ডাবিং করা হবে। একই সময়ে বাংলাদেশ এবং ইরানে মুক্তি দেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *