#  এমপি মজিদ খাঁনকে বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের ফুলেল শুভেচ্ছা #  ক্রসফায়ার বিতর্কে যা বললেন ওবায়দুল কাদের #  লিবিয়ায় সেনা মোতায়েন শুরু করেছে তুরস্ক #  ফজলে হাসান আবেদ-এর স্মরণে আলোচনা সভায় বক্তারা স্যার আবেদের শিক্ষা ও উন্নয়ন চিন্তার কেন্দ্রে ছিল মানুষ #  প্রথমবারের মতো দেশী সিইও পেলো জিপি #  আবরার হত্যা : প্রথম আলো সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা #  ‘উড়ন্ত ট্যাক্সি ঘণ্টায় যাবে ২৯০ কিলোমিটার #  দ্বিগুণ হচ্ছে চেক ডিজঅনারের শাস্তি #  নবীগঞ্জে সংঘর্ষে আহত অনুময় দাশের মৃত্যু #  শাল্লায় মদসহ আটক ৫ #  ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ #  ধর্ষককে ক্রসফায়ারে দেয়ার মত এমপিদের #  মার্কিন ঘাঁটিতে আবারো রকেট হামলা #  রংপুরে বাসের ধাক্কায় অ্যাম্বুলেন্সের ৩ যাত্রী নিহত #  শাল্লায় রাস্তার সরকারি ব্লক নিচে ফেলে হাওররক্ষা বাঁধ #  আদালতের অনুমতি নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিলেন মিন্নি #  কানাডার জনপ্রিয় মডেল রোজি গ্যাব্রিয়েলের ইসলাম গ্রহণ

কাশ্মিরের ঐতিহাসিক জামিয়া মসজিদে টানা ৩ মাস জুমা নামাজ বন্ধ

k

বাংলা কন্ঠ ডেস্কঃ ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মিরে কঠোর নিষেধাজ্ঞা থাকায় শ্রীনগরের ঐতিহাসিক জামিয়া মসজিদে শুক্রবার (১ নভেম্বর) জুমা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়নি। এ নিয়ে একটানা ১২তম শুক্রবার সেখানে জুমা নামাজ হল না। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মির থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে নেয়ার পরে সেখানে কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর করা হয়।

বৃহস্পতিবার জম্মু-কাশ্মির কেন্দ্রীয় সরকার শাসিত প্রদেশে পরিণত হওয়ায় সেখানে নয়া আইন কার্যকর হয়েছে। কেন্দ্রশাসিত নয়া প্রদেশে পরিণত হওয়ার পর প্রথম দিন ছিল শুক্রবার। যদিও বিগত জুমাবারের ন্যায় শুক্রবারও প্রশাসন ঐতিহাসিক জামিয়া মসজিদে জুমা নামাজ আদায়ের অনুমতি দেয়নি।

এ প্রসঙ্গে শুক্রবার ‘অল ইন্ডিয়া সুন্নাত অল জামায়াত’-এর সাধারণ সম্পাদক মুফতি আব্দুল মাতীন বলেন, ‘কাশ্মির পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্রীয় সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। কাশ্মিরের বড় বড় জামে মসজিদগুলোতে পর পর ১২ সপ্তাহ (৩ মাস) বা বারোটা জুমা নামাজ হয়নি। অথচ তারা (কেন্দ্রীয় সরকার) বলছে যে, কাশ্মিরে শান্তি ফিরছে! এটা অত্যন্ত ব্যর্থতা তাদের। কেন্দ্রীয় সরকার কাশ্মিরে শান্তি ফেরাতে ব্যর্থ হয়েছে। আগামী জুমায় যাতে সেখানকার বড় বড় জামে মসজিদগুলোতে মুসুল্লিরা জুমা নামাজ পড়তে পারে কেন্দ্রীয় সরকার তার ব্যবস্থা করুক।’

কাশ্মির থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল করা প্রসঙ্গে মুফতি আব্দুল মাতীন বলেন, ‘৩৭০ ধারা যেটা তুলে দিয়েছে সরকার, আমি বলব এটা কাশ্মিরের জনগণের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকার ‘চরম বিশ্বাসঘাতকতা’ করেছে। কিন্তু সে যা-ই করুক সেখানে শান্তি ফেরাবার দায়িত্ব তাঁদের। অবিলম্বে যাতে কাশ্মিরে শান্তি ফেরে, সেখানকার মানুষ আজও মোবাইল-ইন্টারনেট পরিসেবা পাচ্ছে না। এ নিয়ে গোটা বিশ্ব তাকিয়ে আছে। ভারতের গণতন্ত্র বিপন্ন। কাশ্মির ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। সুতরাং, দেশ থেকে সেটাকে বিচ্ছিন্ন করে রেখে দেয়াটা চরম অমানবিক। সেখানকার মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা যাতে ফিরে আসে সেজন্য কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত সে ব্যাপারে চেষ্টা করা এবং আগামী সপ্তাহে সেখানে বড় বড় মসজিদগুলোতে মুসুল্লিরা জুমা নামাজ পড়তে পারে সে ব্যাপারে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা।’

শুক্রবার সহিংস বিক্ষোভের আশঙ্কায় শ্রীনগরের ঐতিহাসিক জামিয়া মসজিদসহ অন্য বড় মসজিদে নামাজ পড়তে প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এর পাশাপাশি কাশ্মির উপত্যকায় স্পর্শকাতর এলাকায় আংশিক বিধিনিষেধের মধ্যে অতিরিক্ত নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে লোকেদেরকে নিজ নিজ এলাকার মসজিদগুলোতে জুমা নামাজ আদায়ের আবেদন জানানো হয়। কিন্তু শ্রীনগর ও এর আশেপাশে যেখানে জামিয়া মসজিদ রয়েছে সেই এলাকায় সহিংস বিক্ষোভের আশঙ্কায় মুসল্লিদের এক জায়গায় জড়ো হতে নিষেধ করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email