জেএসসি-জেডিসির রোববারের পরীক্ষা পিছিয়েছে

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেটের (জেডিসির) ৪ নভেম্বর রোববারের পরীক্ষাটি আগামী ৯ নভেম্বর শুক্রবার সকাল ৯টায় নেওয়া হবে বলে শিক্ষামন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব মো. জাকির হোসেন জানিয়েছেন।

রোববার জেএসসিতে ইংরেজি ও ইংরেজি প্রথম পত্র (অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য) এবং জেডিসিতে আরবি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা ছিল। এসব পরীক্ষা পিছিয়ে গেল।

পরীক্ষার আগের দিন শনিবার কেন এই সিদ্ধান্ত- জানতে চাইলে বলেন, “অনিবার্য কারণে পরীক্ষা পেছানো হয়েছে।”

তবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, “রোববার ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের ‘শোকরানা মাহফিল’ থাকায় পরীক্ষার্থীদের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।”

রোববার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কওমি মাদ্রাসার ‘শোকরানা মাহফিল’ থাকায় ঢাকা মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পর্যাপ্ত সময় হাতে নিয়ে বের হওয়ারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। এখন মন্ত্রণালয় পরীক্ষাই পিছিয়ে দিল।

কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ সনদ দাওয়ায়ে হাদিসকে (তাকমীল) সাধারণ শিক্ষার স্নাতকোত্তর ডিগ্রির স্বীকৃতি দিতে সম্প্রতি আইন করেছে আওয়ামী লীগ সরকার।

সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে সারাদেশের ১৩ হাজার ৯০২টি কওমি মাদ্রাসার ১৪ লাখ শিক্ষার্থীর পক্ষ থেকে এই সমাবেশ ডাকা হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করবেন শাহ আহমদ শফী।

দেশের সাধারণ শিক্ষা বোর্ডগুলোর অধীন জেএসসি এবং মাদ্রাসা বোর্ডের জেডিসি পরীক্ষা শুরু হয়েছে গত বৃহস্পতিবার। এই দুটি পরীক্ষায় সারাদেশে দুই হাজার ৯০৩টি কেন্দ্রে ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষা চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *