#  এমপি মজিদ খাঁনকে বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের ফুলেল শুভেচ্ছা #  ক্রসফায়ার বিতর্কে যা বললেন ওবায়দুল কাদের #  লিবিয়ায় সেনা মোতায়েন শুরু করেছে তুরস্ক #  ফজলে হাসান আবেদ-এর স্মরণে আলোচনা সভায় বক্তারা স্যার আবেদের শিক্ষা ও উন্নয়ন চিন্তার কেন্দ্রে ছিল মানুষ #  প্রথমবারের মতো দেশী সিইও পেলো জিপি #  আবরার হত্যা : প্রথম আলো সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা #  ‘উড়ন্ত ট্যাক্সি ঘণ্টায় যাবে ২৯০ কিলোমিটার #  দ্বিগুণ হচ্ছে চেক ডিজঅনারের শাস্তি #  নবীগঞ্জে সংঘর্ষে আহত অনুময় দাশের মৃত্যু #  শাল্লায় মদসহ আটক ৫ #  ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ #  ধর্ষককে ক্রসফায়ারে দেয়ার মত এমপিদের #  মার্কিন ঘাঁটিতে আবারো রকেট হামলা #  রংপুরে বাসের ধাক্কায় অ্যাম্বুলেন্সের ৩ যাত্রী নিহত #  শাল্লায় রাস্তার সরকারি ব্লক নিচে ফেলে হাওররক্ষা বাঁধ #  আদালতের অনুমতি নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিলেন মিন্নি #  কানাডার জনপ্রিয় মডেল রোজি গ্যাব্রিয়েলের ইসলাম গ্রহণ

নবীনগরে মাকে নৌকাঘাটে বসিয়া মেয়ে গায়েব

copy

নবীনগর( ব্রাহ্মণবাড়িয়া )প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে মাকে নৌকা ঘাটে বসিয়ে টাকা খুচরা ( ভাঙ্গানোর ) আনার কথা বলে মেয়ে আর ফিরে আসেনি। ঘন্টার পর ঘন্টা নৌকা ঘাটে মা অপেক্ষা করেও মেয়ের সন্ধান না পেয়ে অবশেষে তিনদিন পর ২৫ নভেম্বর সোমবার থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন অসহায় মা মোছেনা বেগম। ঘটনাটি গত ২২ নভেম্বর নবীনগর বাজারের নৌকা ঘাটে ঘটেছে।

জানা যায়, নবীনগর উপজেলার উরখুলিয়া গ্রামের আইয়ুব মিয়ার কন্যা খাদিজা বেগমের সাথে একই উপজেলার দূর্গারামপুর গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী মমিন মিয়ার ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে বিয়ে হয়। গত ৩ মার্চ সৌদি আরবে স্বামীর কাছে চলে যান খাদিজা বেগম। দীর্ঘ ৬ মাস স্বামীর সাথে সৌদি আরব থাকার পর ২৭ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরে আসেন খাদিজা বেগম।

২২ নভেম্বর ডাক্তার দেখানোর কথা বলে শ^শুড় বাড়ি থেকে নবীনগর এলে নবীনগর সদর বাজারের নৌকাঘাটে তার মা মোছেনা বেগমের সাথে দেখা হয়। ওই সময় টাকা ভাংতি আনার কথা বলে খাদিজা বেগম তার মাকে নৌকাঘাট বসিয়ে দিয়ে চলে যাওয়ার কয়েক ঘন্টা অতিবাহিত হওয়ার পরও খাদিজা বেগম ফিরে না আসায় মা মোছেনা বেগম নবীনগর সদর বাজারে মেয়েকে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। দিনভর বিভিন্ন জায়গায় খুঁজাখুজিঁ করেও মেয়ের কোন সন্ধান না পেয়ে, তার শ^শুর বাড়িতে খবর নিয়ে জানতে পারে ওইখানে সে যায়নি।

কোন আত্বীয়-স্বজনদের বাড়িতেও যায়নি। নিখোঁজের তিন দিন পার হয়ে গেলেও মেয়েকে না পেয়ে অবশেষে সোমবার খাদিজার মা মোছেনা বেগম নবীনগর থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন। ডায়েরী নং ৯৫৩। এ বিষয়ে খাদিজা বেগমের বড় ঝা শিউলী বেগম বলেন, আমাদের সংসারে কোন অশান্তি নেই। খাদিজা ডাক্তারের কাছে আসার সময় আমার শাশুরী তাকে গরম দুধ খেতে দিয়েছে। আমার শাশুরী আমাদেরকে মেয়ের মতো স্নেহ করেন। খাদিজা নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে আমার শাশুরী অসুস্থ হয়ে পরেছেন।

এ বিষয়ে নবীনগর থানার ওসি (তদন্ত) রাজু আহম্মেদ সাধারণ ডায়েরীর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি নিখোঁজ খাদিজা বেগমকে দ্রুত সময়ের মধ্যে উদ্ধার করার জন্য।
খাদিজার সন্ধান পেলে ০১৭৭৬৩৯৪৪৮৪ মোবাইল নাম্বারে জানাতে বিনিত অনুরোধ করেছেন তার মা মোছেনা বেগম।

Print Friendly, PDF & Email