Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
 #  আমিরাতের শ্রমবাজার খুলে দেয়ার ইঙ্গিত #  নবীগঞ্জে এমপি মিলাদ গাজীকে সংবর্ধনা #  বরগুনায় র‌্যাবের অভিযানে কারেন্ট জাল জব্দ #  বরগুনায় অস্ত্রসহ ১৪ মামলার আসামি গ্রেফতার #  রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কাজ করছে চীন : রাষ্ট্রদূত #  হোলে আর্টিজান মামলার রায় ২৭ নভেম্বর #  নবীনগরে লতিফ এমপি’র ১৮ তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত #  বিএনপির চিঠি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে #  ৬০ বছরই থাকছে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়স

নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে অভিযোগ নেই মৌসুমীর

mowsumi

বাংলা কন্ঠ ডেস্কঃ  শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে মিশা সওদাগরের চেয়ে ১০২ ভোট কম পেয়েছেন আরিফা জামান মৌসুমী। এ নিয়ে ভক্তদের মাঝে ক্ষোভ থাকলেও মৌসুমী বললেন অন্য কথা। তার ভাষায়, নির্বাচন প্রক্রিয়ায় কোনো ত্রুটি ছিলো না। তাই এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ নেই আমার।

শুক্রবার বাংলাদেশ ফিল্ম ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের (বিএফডিসি) অন্যতম এই সংগঠনের নির্বাচনে সবার চোখ ছিল সভাপতি পদের দিকে; যেখানে দুই বন্ধু মিশা ও মৌসুমীর হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে অপেক্ষায় ছিলেন ভোটাররা। কিন্তু ফলাফল প্রকাশের পর সেই লড়াই চোখে পড়েনি। মৌসুমী পেয়েছেন ১২৫ ভোট, মিশা সওদাগর পেয়েছেন ২২৭ ভোট।

মিশার নেতৃত্বে শিল্পী সমিতির কাজে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ চলচ্চিত্রের এ নায়িকা। ফলাফল প্রকাশের পর শনিবার মৌসুমী নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে বলেন, ‘নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে আমি কোনো অভিযোগ করতে চাচ্ছি না।’ তার চেয়ে বরং শিল্পীদের পাশে থাকার বিষয়েই অধিকতর মনোযোগী তিনি। শিল্পীদের নিয়ে কাজ করলে মিশাদের পাশে থাকার অঙ্গীকারও করলেন তিনি।

‘শিল্পী সমিতি যে সিদ্ধান্তগুলো নেবে সেগুলোর সাথে আমিও একমত থাকব। শিল্পীর জন্য কাজ করলে আমি ওদের পাশে থাকব; কিন্তু ব্যক্তিগত কাজের ক্ষেত্রে হাত বাড়াবো না। শিল্পীদের উন্নয়নে কিছু করে সেখানে অবশ্যই যাবো।’ মিশা সওদাগরও পুরানো বিভেদ ভুলে সম্প্রীতির বার্তা দিয়ে বললেন, শিল্পীদের উন্নয়নে মৌসুমীকে পাশে নিয়েই এগিয়ে যেতে চান তারা।

ব্যক্তিগত জীবনে দুই বন্ধু মিশা ও মৌসুমী নির্বাচনকে ঘিরে একে অপরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে বরাবরই আলোচনার খোড়াক জুগিয়েছেন। কখনও কখনও তারা ব্যক্তিগত আক্রমনে সামিল হলেও ভোটের দিনে বেশ খোশ মেজাজেই দেখা গেছেন তাদের।

প্যানেল ঘোষণার দিন নির্বাচনে বিশৃঙ্খলার শঙ্কার কথা জানালেনও নির্বাচনের দিন মৌসুমী বলেছিলেন, নির্বাচনের পরিবেশ খুবই ভালো। বিশেষ করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার জন্য নির্বাচনের পরিবেশ ভালো ছিল। ‘নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে কোনো প্রশ্ন ছিল না মিশা সওদাগরেরও। তিনি বলেছিলেন, মৌসুমী ও আমি দুজনেই নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার কথা বলেছি। এটিকে আমি সাধুবাদ জানাই।

শুক্রবার দিনভর নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণার আগেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মৌসুমীর সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর একসঙ্গে গণমাধ্যমের মুখোখি হয়েছিলেন তারা। মৌসুমী বলেছিলেন, আমরা একটাই ফুল কিনে রেখেছি। যে জিতবে তার গলাতেই মালা উঠবে। শেষ পর্যন্ত সেই মালাটি মিশার গলাতেই উঠে।

শিল্পী সমিতির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো নারী সভাপতি পদে নির্বাচনে অংশ নিয়ে নজির স্থাপন করেছেন বলে মন্তব্য এসেছে নির্বাচন কমিটির প্রধান ইলিয়াস কাঞ্চনের তরফ থেকে।

শুক্রবার মধ্যরাতে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা সময় তিনি বলেন, ‘জয় পরাজয় পরের বিষয়, শিল্পী সমিতির ইতিহাসে এই প্রথম কোনো অভিনেত্রী সভাপতি পদে অংশ নিলেন, এটাই অনেক বড় ব্যাপার।’

Print Friendly, PDF & Email