Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
 #  বিশ্বের সবচেয়ে ‘হ্যান্ডসাম’ হৃতিক রোশন #  স্বর্ণের দাম বাড়ছে ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা #  অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন ২০ পুলিশ কর্মকর্তা #  সিপিডি’র ভবনে এডিসের লার্ভা #  মন্ত্রণালয়গুলোকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর #  বাস-সিএনজি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৬ জনসহ নিহত ৮ #  বাবার কিনে দেয়া মোটর সাইকেল কেড়ে নিল ছেলের প্রাণ #  জি এম কাদেরকে বিরোধী দলের নেতা করার দাবি #  তরঙ্গ পত্রিকা পাঠক ফোরামের উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত #  বিএনপি’র হাত ধরেই ‘জঙ্গিবাদের’ উত্থান : হানিফ

৫৬ ভাগ বাড়িতেই ডেঙ্গুর মশা !

431986_148

রাজধানীর ৫৬ ভাগ বাড়িতেই ডেঙ্গুর বাহক এডিশ মশার লার্ভা রয়েছে। সম্প্রতি স্কাউট পরিচালিত এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। বিষয়টি জানিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, বাংলাদেশ স্কাউটের সদস্যরা গত ১ জুলাই থেকে শনিবার পর্যন্ত এক লাখ ১০ হাজার ৭৬৫টি ভবন পরিদর্শন করে। এর মধ্যে ৬২ হাজার ২৩৭ টি বাড়িতেই এডিশ মশার লার্ভা পাওয়া গেছে। এছাড়া সিটি করপোরেশন নিজেরা ২৫ হাজার ৯৯৭টি বাড়ি পরিদর্শন করে ৮২৩টি বাড়িতে মশার লার্ভা পেয়েছে জানিয়ে মেয়র বলেন, এসব লার্ভা ধ্বংস এবং নির্মাণাধীন ৯৫ বাড়ি মালিককে জরিমানা করা হয়েছে।

ঢাকা দক্ষিণের এক লাখ ৬৩ হাজার বাড়ি মালিকের মধ্যে বিনামূল্যে অ্যারোসল স্প্রে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র এ কথা বলেন। আজ দুপুরে নগর ভবনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমোডর জাহিদ হোসেন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. শরীফ আহমেদ, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ইউসুফ আলী সরদার, সচিব মোস্তফা কামাল মজুমদার প্রমুখ।

মেয়র খোকন বলেন, এডিস মশার প্রাদুর্ভাব শুধু বাংলাদেশে নয়, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইনসহ ১২৬টি দেশে রয়েছে। এডিসের বিরুদ্ধে আমরা মার্চ মাস থেকে কাজ শুরু করেছি, যা এখনও চলছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ অনুযায়ী এডিস মশার লার্ভা ধ্বংস করতে কর্মপরিকল্পনা ঠিক করেছি, সে অনুযায়ী কাজ চলছে। এডিস মশা বাইরে থেকে আসে না; এটা বাসার ভেতরে, ফুলের টবে, খাটের ভেতরে বাসা বাঁধে, জমে থাকা পানিতে ডিম দেয়। এজন্য আমরা চেষ্টা করছি বাসাগুলোতে কাজ করার। আমরা এক লাখ ৬৩ হাজার করদাতাকে বিনামূল্যে অ্যারোসল স্প্রে বিতরণ করবো। তাছাড়া আপনারা (বাড়ির মালিক) যদি অনুমতি দেন, তাহলে বাসায় গিয়ে স্প্রে করে আসবো। দুর্যোগপূর্ণ সময়ে আমরা সবার সহযোগিতা চাই। সবার প্রচেষ্টায় আমরা এ শহরকে ডেঙ্গুমুক্ত করতে চাই।

নগরবাসীর উদ্দেশে মেয়র বলেন, ঈদুল আজহায় আপনারা নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাই করবেন, আপনাদের বিনামূল্যে বস্তা, ব্লিচিং পাউডার সরবরাহ করা হবে। আপনাদের সহযোগিতা পেলে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই একটি ডেঙ্গুমুক্ত নগর উপহার দিতে পারবো।

Print Friendly, PDF & Email