বাংলাদেশে লজ্জিত করোনা : সেলিম উদ্দিন

হবিগঞ্জ জেলার কোন কোন এলাকা সহ সারা দেশের বিভিন্ন স্থানে লকডাউন মানছে না কিছু মানুষ, হাট বাজার পাড়া মহল্লায় লেগে থাকছে উপচে পড়া ভিড় ।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেশব্যাপী লকডাউন চললেও বিভিন্ন স্থানের মানুষ তা মানছে না। বিভিন্ন ইউনিয়নের ছোট-বড় বাজার ও দোকানপাটে  ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এতে করোনা ঝুঁকির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

কিছুদিন আগে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেন। এরই প্রেক্ষিতে প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি মানুষকে বাসা-বাড়িতে অবস্থান করতে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টিসহ বিভিন্ন বাজারে নিয়মিত মনিটরিং করছেন।

প্রথমদিকে মানুষ নিয়মনীতি মানলেও গত কয়েকদিন যাবত বিভিন্ন উপজেলার ছোট-বড় বাজারগুলোতে মানুষের অবাধ যাতায়াত দেখা যায়। এছাড়া প্রত্যন্ত এলাকার অলিগলি দোকানপাটেও দিন-রাত মানুষের আড্ডা চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গ্রাম এলাকায় মাস্ক না পরেই রাস্তায় অবাধে ঘোরাঘুরি করছে মানুষ। নদীতে স্নান করছে লোকেরা। বিভিন্ন স্থানে ক্রিকেট-ফুটবল খেলা হচ্ছে। গ্রাম এলাকার এক বয়স্ক লোকের সাথে আলোচনা করলে তিনি বলেন করোনা আবার কি ? যখন যা হবার তাই হবে। আমাদের সাথে এইসব নিয়ে কথা বলে লাভ নেই।

কি ভয়ানক কারবার যে করোনার ভয়ে সারা বিশ্বের মানুষ আতঙ্কিত হলেও বাংলাদেশের অনেক মানুষ করোনাকে কোন পাত্তাই দিচ্ছেন না। একমাত্র বাংলাদেশে এসেই করোনা লজ্জিত ও অপমানিত ।

এদিকে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক, ডাক্তার-নার্স, সরকারি কর্মকর্তা, কর্মচারী সহ ৯০ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। কিন্তু দুই একজন বাদে তাদের শরীরে কোন উপসর্গ দেখা যায়নি। সারা দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩,১৩৪ জন।

স্থানীয় প্রশাসন বলেন, আমরা নিয়মিত বাজারগুলো মনিটরিং করছি। চেষ্টা করছি মানুষকে লকডাউন মেনে চলতে উদ্বুদ্ধ করতে। অনেকদিন হয়ে গেছে তাই মানুষকে ঘরে আটকে রাখা যাচ্ছে না। সরকারের নির্দেশ না মানলে আমাদেরকে আরো হার্ডলাইনে যেতে হবে।

🏠 ঘরে থাকুন নিরাপদে থাকুন পরিবার ও দেশটাকে সুরক্ষিত রাখুন সকলের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *