নাটোর জেলা কারাগার থেকে মোট ২৮ কয়েদীর মুক্তি

সুলতানুল আরিফিন কাজল, নাটোর : করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে নাটোর জেলা কারাগার থেকে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করে লঘু দন্ডে দন্ডিত আরো ১৭ জন কয়েদীকে মুক্তি দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। এনিয়ে নাটোরে মোট ২৮ জন কয়েদী মুক্তি পেলো। মুক্তিপ্রাপ্ত সবাই মাদক মামলার কমপক্ষে ১ বছরের সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি ছিল।

শনিবার দুপুরে কারাগার চত্বরে বন্দীদের মুক্ত করে তাদের হাতে ফুল ও ইফতার সামগ্রী তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ। এসময় পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, জেলা কারাগারের সুপার আব্দুল বারেক উপস্থিত ছিলেন। এসময় বন্দীমুক্তদের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক বলেন, সরকার সাজা মওকুফ করে আপনাদের মুক্তি দিয়েছে-যাতে করে আপনারা সংশোধিত হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারেন। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে কর্মজীবনে ফিরে গিয়ে পরিবার ও দেশের জন্যে কাজ করবেন।

পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, আবারো অপরাধে জড়িয়ে পড়লে আইনের আওতায় এনে দ্রুত শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। আর সংশোধন হলে প্রশাসন ও পুলিশ সহযোগিতা করবে। তাই সকলকে এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে কর্মজীবনে ফিরে গিয়ে পরিবার ও দেশের জন্যে কাজ করতে হবে।

অনাড়ম্বর এই আয়োজনে কারাগার থেকে বন্দীদশা থেকে মুক্ত ব্যাক্তিরা সাধারণ ক্ষমার জন্যে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং মুক্ত জীবনে আর কখনো অপরাধ জড়িত না হওয়ার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।

জেল সুপার আব্দুল বারেক জানান, করোনা পরিস্থিতিতে কারাগারে বন্দীদের সুস্থ্য জীবন নিশ্চিত করতে সারদেশের ৬৮টি কারাগার থেকে অনধিক এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত মোট দুই হাজার ৮৮৪ জন কয়েদীকে সাধারণ ক্ষমার আওতায় মুক্তির সিদ্ধান্ত গ্রহন করে স্বরাস্ট্র মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে নাটোর জেলা কারাগারে রয়েছে মোট ৩০ জন। গত সপ্তাহে ১১ জনকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। অবশিষ্ট ১৯ জনের মধ্যে দুইজনের সাজার মেয়াদ ইতোমধ্যে শেষে তারা মুক্তি পেয়েছেন এবং একজন মহিলাসহ ১৭ জন আজ মুক্তি পেল। এসব কয়েদীর বেশীরভাগই মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত। দুই’শ জন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন নাটোর জেলা কারাগারে বর্তমানে ৮৭২ জন বন্দী রয়েছে বলে জানান জেল সুপার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *