বানিয়াচংয়ে সম্পত্তির ভাগ চাওয়ায় বড়ভাইর উপর হামলা

বানিয়াচং(হবিগঞ্জ)প্রতিনিধি ॥ বানিয়াচং উপজেলার কামালখানী গ্রামে সম্পত্তির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে ছোট দুইভাই ও পরিবারের সদস্যদের হামলায় বড়ভাই গুরুতর আহত হয়ে ঢাকায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।
আহত ব্যাক্তির নাম মোশাহিদ মিয়া(৩৮) সে কামালখানী গ্রামের মৃত হাজী আব্দুল কুদ্দুছ মিয়ার পুত্র।
হামলাকারীগন হলেন মোশাহিদের আপন দুই সহোদর মোজাহির মিয়া ও মোহাদ্দিস মিয়া এবং মোজাহির মিয়ার স্ত্রী শেফা আক্তার।
এ ঘটনায় বানিয়াচং থানায় ১৫মে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মামলার বাদী মোশাহিদ মিয়ার স্ত্রী জামিনা বেগম।
প্রত্যক্ষদর্শী ও মামলার বিবরনে জানা যায়, আহত ব্যাক্তি মোশাহিদ মিয়া তার সম্পদের ভাগ চাওয়ার কারনে ছোট দুইভাই মোজাহির ও মোহাদ্দিস দীর্ঘদিন যাবৎ টালবাহানা করে আসছেন।
এমন কি তাকে বিভিন্ন সময়ে প্রননাশের হুমকি প্রদান করলে বাধ্য হয়ে বানিয়াচং থানায় একটি জিডি এন্ট্রি করেন।
ঘটনার দিন ১২ মে রাত ৮টার সময় সম্পত্তির ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে তর্ক বিতর্কের এক পর্যায়ে মোজাহির মিয়া, মোহাদ্দিস মিয়া ও শেফা বেগম সহ পরিবারের অন্যান্য লোকজন মিলে হামলা করে তাকে মারাত্মকভাবে আহত করে । এ সময় হামলাকারীরা তার ঘরে থাকা নগদ দেড় লক্ষ টাকা চার ভরি স্মর্নালংকার,দুটি মোবাইল সেট ও মোটর সাইকেল ভাংচুর করে চলে যায়।
ঘটনার পরপর বানিয়াচং হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরন করেন।
হামলাকারী ঐ দুই ভাই এলাকার চিহ্নিত দাঙ্গাবাজ ও সন্ত্রাসী হিসেবে বিভিন্ন সময়ে এলাকায় দাঙ্গা হাঙ্গামায় লিপ্ত থাকায় এদের নামে একাধিক মামলা রয়েছে।
এলাকাবাসী এ ব্যাপারে ঐ দাঙ্গাবাজ দুই ভাইয়ের উপযুক্ত বিচার দাবি করেছেন।
এ ব্যাপারে মামলার বাদী জামিনা বেগম জানান, আমার স্বামীকে প্রানে হত্যার জন্য আমার দুই দেবর ও জা হামলা করে আমার দুই শিশু বাচ্চাকে এতিম করতে চেয়েছিল।
তারা আমার স্বামীর হক বঞ্চিত করে আমাদেরকে বাড়ি-ঘর ও বিষয সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য দীর্ঘদিন যাবৎ ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।
আমি প্রমাসনের নিকট এর সঠিক বিচার চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *