নাটোরে স্ত্রীর পরকিয়ার জেরেই ভাইয়ের হাতে ভাই খুন হয়েছে: এসপি-লিটন

সুলতানুল আরিফিন কাজল,নাটোরঃ নাটোরে স্ত্রীর সাথে বড় ভাইয়ের পরকিয়ার জেরে ছোট ভাইকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।
নিহত ওমর ফারুক ওরফে মিঠু সদর উপজেলার সিংহারদহ এলাকার আব্দুল্লাহ মিয়ার ছেলে।  নিহতের স্ত্রী আম্বিয়া বেগম তার ভাসুর আব্দুল কাদেরকে সাথে নিয়ে মিঠুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।
মঙ্গলবার (৯ জুন) এক প্রেস বিফিংএ পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা এই স্বীকারোক্তির বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান।
পুলিশ সুপার আরও জানান,  চলতি মাসের ৩ তারিখে ভাটা  শ্রমিক ওমর ফারুক ওরফে মিঠুর লাশ তার বাড়ির উঠানে উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের পিতা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রীকে আটক করা হলে বের হয়ে আসে এক লোমহর্শক কাহিনী। স্বামীর বড় ভাইয়ের সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পরেন আম্বিয়া। ভাসুর আম্বিয়াকে বিয়ে করতে চাইলে মিঠুকে মেরে রাস্তা পরিস্কার করার পরিকল্পনা করে তারা। পরিকল্পনা মতে  প্রথমে পান্তা ভাতের সাথে তিনটি ঘুমের ওষুধ খাওয়ানো হয় মিঠুকে। সে ঘুমিয়ে পড়লে বড় ভাই কাদের গামছা দিয়ে মিঠুর গলায় পেচিয়ে ধরে।  কিছুক্ষণ পরে মৃত্যু নিশ্চিত হলে লাশ নিয়ে বাড়ির পাশে পুকুড়ে ফেলে দেওয়ার জন্য নিয়ে যাচ্ছিল এমন সময় মাটি বহন কারী ট্রাকের আলো দেখতে পেয়ে লাশটি বাড়ির সামনে রেখে পালিয়ে যায় তারা। আম্বিয়া ও কাদেরকে এই হত্যা মামলায় গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *