নাটোরের বড়াইগ্রামে নারী ও মাদকের রমরমা ব্যবস্যায় মগ্ন সন্ত্রাসী “রানা”

সুলতানুল আরিফিন কাজল,নাটোর : নাটোর বড়াইগ্রামে নারী ও মাদকের রমরমা ব্যবসার অভিযোগ উঠেছে “সন্ত্রাসী রানা” নামে পরিচিত একজনের বিরুদ্ধে। রানা জোনাইল ইউনিয়নের চৌমহন গ্রামের মৃত-মুছুদ আলীর ছেলে।
এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন- রানা রাজনৈতিক নেতাদের ছত্রছায়ায় চালাচ্ছে নারী ও মাদক এর রমরমা ব্যবসা। রানা একজন সন্ত্রাসী, সে নেতাদের সাথে থাকে বলে কেউ ভয়ে মুখ খুলে না তার বিরুদ্ধে। নাম প্রকাশে অনিইচ্ছুক এলাকাবাসী বলেন-  রানার বাড়িতে সব সময় অজানা অচেনা বাহিরে লোক আসা যাওয়া করে। কেউ ভয়ে কাউকে বলতে পারেনা।  যে বলে তার উপরে শুরু হয় অত্যাচার ।
কিছুদিন পূর্বে রানাকে জুয়ার আড্ডা থেকে ধরে পুলিশের দেয় এলাকাবাসী, কিন্তু কোন এক অদৃশ্য ক্ষমতায় কযে়কদিন পরেই বেরিযে় আসে রানা।
এছাড়াও রানা বিভিন্ন এলাকার মেয়ে নিয়ে এসে দেহ ব্যবসা করায় বলেও অভিযোগ আছে। একই গ্রামের এক মহিলার বাড়িতে জোর করে মাদক রাখবে বলে মহিলাকে বলে চাপ দেয় রানা , কিন্তু মহিলা অস্বীকার করাতে তাকে অন্যায় ভাবে অত্যাচার করে। অত্যাচারিত মহিলা রানার বিরুদ্ধে র‌্যাবের কাছে অভিযোগ করেও কোন কাজ হয়নি।
এভাবে দিন দিন রানার অত্যাচার বেড়েই চলেছে। রানার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থার জন্য প্রসাশনের হস্তক্ষেপ আশা করেছে এলাবাসী। এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দ্বীলিপ কুমার দাসের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান- রানার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ আসেনি যদি অভিযোগ পাই, তাহলে তা তদন্ত করে অইনগত ব্যবস্থা করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *