নাটোরে বিসিএস পরীক্ষা দিতে না দেওয়ায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

সুলতানুল আরিফিন কাজল,নাটোর : নাটোরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক ছাত্রী নাটোরের গৃহবধূ সুমাইয়াকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।
২২জুন রাতে সুমাইয়া বেগমের মা নাটোর সদর থানায় হত্যার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। তবে গতকাল সকালে শ্বশুরবাড়ির লোকজন সুমাইয়া গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে হাসপাতালে নিয়ে যায়।
পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া ইসলামিক স্টাডিজ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। বর্তমানে তিনি বিসিএস পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কিন্তু শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে চাকরি করতে দিতে চান না। এই নিয়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে অনেকদিন থেকেই মনোমালিন্য চলছিল। অভিযোগে বলা হয়েছে রোববার রাতে সুমাইয়াকে তার স্বামী মারপিট করে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে।
নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, নিহত গৃহবধূর মা নুজহাত বেগম বাদী হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি আমরা গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি। এ বিষয়ে একজনকে আটক করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, নিহত সুমাইয়া যশোরের সিদ্দিকুর রহমানের মেয়ে। ২০১৯ সালে নাটোরের বড় হরিশপুর এলাকায় প্রকৌশলী মোস্তাক হোসেনের সাথে বিয়ে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *