নবীগঞ্জে টিসিবি পণ্য মজুতকারী ইনাতগঞ্জের আলোচিত ব্যাবসায়ী নোমান গ্রেফতার

উত্তম কুমার পাল হিমেল,নবীগঞ্জ ( হবিগঞ্জ) : নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের লালাপুর গ্রামের হাজী হেলিম উদ্দিনের পুত্র ইনাতগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নোমান হোসেন (৩৫) কে অবৈধভাবে টিসিবি পণ্য  মজুত করে রাখার অভিযোগে বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়েরকৃত মামলায় গ্রেফতা করেছে জগ্নাথপুর থানার পুলিশ।
মঙ্গলবার রাতে জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইখতিয়ার হোসেন চৌধুরীর নেতৃত্বে এসআই মনির হোসেনসহ একদল পুলিশ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে নোমান হোসেনকে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করেন।  পরে তাকে জগন্নাথপুর থানায় নিয়ে যান।
এসআই মনির হোসেন জানান,রাত আড়াইটায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। দরজা খুলে না দেয়ায় সময় বিলম্বিত হয়েছে। বশেষে  ভোর সাড়ে ৪ টায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।
উল্লেখ্য,নোমান হোসেনের নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজারে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্টান রয়েছে। ইনাতগঞ্জ বাজারে ব্যবসা প্রতিষ্টান থাকলেও নোমান ইনাতগঞ্জ বাজারের পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাও ইউনিয়নের আলীগঞ্জ বাজারে একটি গুদাম ভাড়া নেয়।
  উক্ত গুদামে তিনি  ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ন্যায্য মূল্যের বিপুল পরিমাণের পণ্য জব্দ করে রাখে। সেখানে টিসিবির নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মোড়ক অবৈধভাবে পরিবর্তন করে কালোবাজারে বিক্রি করার জন্যরাখা হয়েছিল । খবর পেয়ে গত ১৩ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে  জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের আলীগঞ্জ বাজারে নবীগঞ্জ ও জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসন অভিযান চালিয়ে গুদাম থেকে টিসিবির বিপুল পরিমাণ পণ্য জব্দ করে।
প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নোমান হোসেন আলীপুর বাজারে টিসিবির পণ্য মজুত করে অসৎ উদেশ্যে মোড়ক পরিবর্তন করে কালোবাজারে বিক্রির জন্য রেখেছিলেন।
 খবর পেয়ে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল,থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো.ইয়াসির আরাফাত ও জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী নেতৃত্বে একদল পুলিশ আলীপুর বাজারে অভিযান চালিয়ে টিসিবির মোড়ক পরিবর্তনের প্রমাণ পান। গুদামের কর্মচারীর স্বীকারোক্তি অনুসারে টিসিবির ৪৯ কার্টন পুষ্টি ব্র্যান্ডের সয়াবিন তেল এবং ৫০ কেজি ওজনের ৭৩ বস্তা চিনি জব্দ করা হয়।
এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ দাশ বাদী হয়ে নোমান হোসেন ও ডিলার আব্দুল হাদীকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার অপর আসামী ডিলার আব্দুল হাদী পলাতক রয়েছে।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইখতিয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, টিসিবি পণ্য মজুত করে রাখায় অভিযোগে বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়েরকৃত মামলায় নোমান হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *