বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার আরেক আসামি জামিনে মুক্ত

বীরেন্দ্র কিশোর, বরগুনা : বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেফতার হওয়া প্রথম আসামি জয়চন্দ্র সরকার চন্দনকে জামিনে মুক্তি দিয়েছেন আদালত। দীর্ঘ এক বছর কারাবাস শেষে বুধবার (১-৭-২০) বরগুনার শিশু আদালতের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান চন্দনের জামিন মঞ্জুর করেন। বৃহস্পতিবার (২-৬-২০) প্রক্রিয়া শেষে কারাগার থেকে মুক্ত হন।

গত বছরের ২৬ জুন রিফাত হত্যাকান্ডের একদিন পর ২৭ জুন চন্দনকে তার বাসা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আলোচিত এই হত্যাকান্ডে চন্দনকে গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে এ মামলার আসামিদের গ্রেফতার শুরু হয়।

এ বিষয়ে আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির মধ্যে পাঁচ নম্বর আসামি জয়চন্দ্র সরকার চন্দন। এ মামলায় প্রথম গ্রেফতার হয়ে চন্দন ইতোমধ্যে আদালতে হত্যাকান্ডের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

তিনি বলেন, চন্দনের পক্ষে আদালতে মামলাটি পরিচালনা করেন আইনজীবী নার্গিস পারভীন সুরমা। মঙ্গলবার তিনি চন্দনের জামিনের আবেদন করেন। বুধবার শুনানির নির্ধারিত দিন ছিল। কিন্তু আইনজীবী নার্গিস পারভীন সুরমা অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার পক্ষে আমি শুনানি করি। এরপর শুনানি শেষে আদালত দুপুর ১২টার দিকে চন্দনকে জামিন দেন।

এ নিয়ে রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির মধ্যে নয়জন আসামি জামিনে মুক্ত রয়েছে। আর প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির মধ্যে শুধুমাত্র নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জামিনে রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত বছর ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে আহত করা হলে ওই দিন বিকেল বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপালে তিনি মারা যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *