বানিয়াচংয়ে পানিবন্দি মানুষের মাঝে এমপি মজিদ খানের ত্রাণ বিতরণ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বানিয়াচংয়ে পানিবন্দি মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ত্রাণ বণ্ঠন করা হয়েছে।

২৩ জুলাই বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী ৪নং উত্তর পশ্চিম ইউনিয়নে অবস্থিত বনমতুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১৪ নং মুরাদপুর ইউনিয়নে অবস্থিত এসএসডিপি মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয় ও ১৫ নং পৈলারকান্দি ইউনিয়নে অবস্থিত জেডিএম উচ্চ বিদ্যালয়ে আশ্রয় নেয়া ও বিভিন্ন বাজার ও এলাকায় পানিবন্দি লোকজনের মাঝে ত্রাণ বণ্ঠনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও হবিগঞ্জ-২(বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব এডভোকেট আব্দুল মজিদ খাঁন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কাশেম চৌধুরী, বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা, ভাইস চেয়ারম্যান ফারুক আমিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসিনা আক্তার, বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামিলীগের যুগ্ম-সম্পাদক মোঃ তজম্মুল হক চৌধুরী, বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম খোকন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাশ, ইউপি চেয়ারম্যান রেখাছ মিয়া, মোতাহের হোসেন, ফজলুর রহমান খাঁন প্রমুখ।

বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা পানিবন্দি লোকজনের উদ্দেশ্যে বলেছেন বণ্যাসহ প্রাকৃতিক যেকোন দূর্যোগে মাননীয় এমপি স্যারের নেতৃত্বে আমরা আপনাদের পাশে আছি থাকবো। পানিবন্দি কাউকেই না খেয়ে থাকতে হবে না।

বানিয়াচং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কাশেম চৌধুরী বলেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মাননীয় এমপি মহোদয় সহ সরকারি সকল কর্মকর্তাদের নিয়ে আমরা আপনাদের যে কোন দূর্যোগে পাশে আছি থাকবো ।

হবিগঞ্জ-২(বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব এডভোকেট আব্দুল মজিদ খাঁন বলেছেন যে কোন প্রাকৃতিক দূর্যোগে কাউকেই না খেয়ে থাকতে হবেনা।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার নিয়ে আপনাদের জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি উপজেলা চেয়ারম্যান ও সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে ইউএনও সহ সবাই আপনাদের পাশে আছি। আমাদের বর্তমান জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ও ত্রান বণ্ঠনের ক্ষেত্রে খুবই আন্তরিক।

তিনি ও আমাকে বলেছেন সরকারি ত্রাণের ক্ষেত্রে কোন সমস্যা হবেনা। যে কোন দূর্যোগে কাউকেই না খেয়ে থাকতে হবেনা। তিনি গ্রামের মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন বর্তমানে যে ধরনের পানি হয়েছে তার দিকে নজরদিয়ে আগামীতে বসতঘর উচু করে তৈরী করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *