বানিয়াচংয়ে দুর্ধর্ষ ডাকাতি ॥ ২ ডাকাত আটক

বানিয়াচং (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে।

বুধবার (৩১অক্টোবর) রাত আড়াইটার দিকে যাত্রাপাশার শিবু মাষ্টারের বাড়িতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

ডাকাতরা ঘরে ঢুকে সবাইকে জিম্মি করে নগদ টাকাসহ প্রায় লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়। জানা যায়,প্রতিদিনের ন্যায় শিবু মাষ্টার ও তার স্ত্রী রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন।

এ সময় একদল সশস্ত্র ডাকাত বারান্দার গ্রিলের তালা ও মেইন ঘরের দরজার সিটকারি ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে তারা দুইজনকে হাত-মুখ বেঁধে ফেলে। পরে ঘরে থাকার ষ্টীলের আলমিরা ভেঙ্গে নগদ ৬হাজার টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন,চেক বইসহ আসবাবপত্র নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে শিবু মাষ্টার জানান, কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই ৭/৮জন মুখোঁশ পরিহিত ডাকাত ঘরে ঢুকেই আমি এবং আমার স্ত্রীকে জিম্মি করে ফেলে। ঘরের আসবাবপত্র তছনছ করতে থাকে তারা। ভাঙ্গতে শুরু করে আলমিরাসহ ড্রেসিংটেবিল। প্রায় আধা ঘন্টা তান্ডব চালায় ডাকাতদল।

ডাকাতির খবর পেয়ে ৩১ অক্টোবর বুধবার সকালে বানিয়াচং থানার এসআই সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অন্যদিকে এই ডাকাতির সাথে জড়িত দুই ডাকাতকে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। দক্ষিণ যাত্রাপাশার বনমথুরা থেকে দা,রামদাসহ তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকৃত ডাকাতরা হল-সাগরদীঘি পশ্চিমপাড়ের আহম্মদ আলীর পুত্র সোহাগ মিয়া(২৫) ও একই এলাকার মহসিন মিয়ার পুত্র হৃদয় মিয়া (২২)।
এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ওসি রাশেদ মোবারক জানান,পুলিশ ডাকাতি রোধে সর্বাতœক চেষ্টা করে যাচ্ছে। দ্রুত এই ডাকাতির সাথে জড়িত অন্যান্য ডাকাতদের বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *