একাধিক সিনেমা থেকে বাদ পড়লেন দীঘি!

বাংলা কণ্ঠ রিপোর্ট ॥ মূলত শিশুশিল্পী হিসেবে পরিচিতি তথা জনপ্রিয়তা পেলেও অভিনেত্রী বা নায়িকা হিসেবে প্রার্থনা ফারদিন দীঘি এখনও নতুন মুখ। সে হিসেবেই এবার বড় পর্দায় নায়িকা হিসেবে কাজ শুরু করেছেন দীঘি। কিন্তু শুরুতেই বড় ধাক্কা খেলেন তরুণ এই অভিনেত্রী। একসঙ্গে পাঁচ-পাঁচটি ছবি থেকে দীঘি বাদ পড়েছেন বলেই শোনা যাচ্ছে।

গত বছর দীঘিকে নিয়ে ছয়টি ছবি নির্মাণের ঘোষণা দেয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া। এরপর আরও কয়েকটি ছবিতে তাকে নেয়ার কথা শোনা যায়। কিন্তু ছয় মাস না যেতেই শাপলা মিডিয়ার বাকি ছবিগুলো থেকে দীঘিকে বাদ দেওয়া হয়েছে বলেই শোনা যাচ্ছে। তার পরিবর্তে অন্য নায়িকা নিয়ে নতুন ছবির কাজ শুরু করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি।

জানা যায়, ‘যোগ্য সন্তান’ নামে একটি সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিল শাপলা মিডিয়া। এতে শান্ত খানের বিপরীতে দীঘির অভিনয় করার কথা ছিল। পরিচালনার কথা ছিল কাজী হায়াতের।

এ ব্যাপারে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার সেলিম খানও কথা বলতে না চাইলেও কাজী হায়াৎ বলেছেন, ‘ওই ছবি আর হবে না। সাইনিংয়ের পরই ছবির কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। যতদূর জানি, ওই সময়ে যে কটি ছবির সাইনিং ও ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল, তার সবগুলো প্রজেক্ট এখন বন্ধ।

‘ধামাকা’ নামে ওপর একটি ছবিরও একই অবস্থা। তবে বর্তমানে দীঘির হাতে রয়েছে একটি মাত্র ছবির কাজ। এর আগে শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ ছবির কাজ শেষে করেন এই তরুণ। এছাড়া ‘তুমি আছ-তুমি নেই’ নামে একটি ছবির কাজও শেষ করেছেন দীঘি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *