বদ্ধঘরে জীবন যেমন : কোহিনূর কেয়া

আকাশ মেঘে ঢাকা,
চারিদিকে কালো মেঘ বাতাসের ঘনঘটা।
জীবনের সব রোদ, নিয়েছে বিদায়
হতাশা কেনো আজ তাড়িয়ে বেড়ায়।
ছিন্ন বিনা বাজে তাঁর ছেড়া সূর,
সুরের আওয়াজ যেনো কড়া রোদ্দুর।
মনের ভিতর করে বড়ই আনচান,
এখন আর কারো প্রতি নেই কোনো টান।
তবুও মন কেনো করে আই ঢাই
বিশ্বে আপন বলতে কেউ আর নাই।
ভালোবেসে আদর করে ধরেছি যে হাত,
হাত ছেড়ে সে মোরে করে গেল ত্যাগ।
তোবুও আমার কিন্তু নেই কোনো খেদ,
নিজের মনে বেঁচে থাকার তৈরি হল জেদ।
সমাজের নিয়মে বাঁধেনা আর ঘর,
একসাথে কেউ নেই কারো সহচর।
ভাই বলো বন্ধু বলো আপন কেউ নয়,
সবকিছু নিরবে সয়ে যেতে হয়।
যে সহে সে রহে,কবিদের কথা,
এর মধ্যে চুপচাপ ভুলে থেকো ব্যথা।
ব্যথার বলিদান হয়েছে যে তাই,
পর হয় আপন,আপন নয় ভাই।
ছেলে মেয়ে ভাই বোন সবই হয় পর,
তোবুও সবাই মিলে এক ছাঁদে ঘর।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *