স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার উসকানিদাতারা দেশের শত্রু : আমু

বাংলা কণ্ঠ রিপোর্ট ॥ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ক্ষমতাসীন জোট ১৪ দলের সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু বলেছেন, করোনা সঙ্কটকালে স্কুল-কলেজ দ্রুত খুলে দেয়ার জন্য যারা উসকানি দিচ্ছে, ছাত্রসমাজের তো নয়ই তারা দেশ ও জাতির শত্রু। ওই ষড়যন্ত্রকারীরা দেশকে একটি ভয়াবহ মহামারীর দিকে নিয়ে যাওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গতকাল বুধবার ১৪ দলের উদ্যোগে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। সভাপতির বক্তব্যে আমির হোসেন আমু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও সুদূরপ্রসারী নেতৃত্বের কারণে করোনা সঙ্কট থেকে উত্তরণের পথে বাংলাদেশ। সব প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে দেশকে যখন তিনি উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, সাধারণ মানুষের আশাআকাক্সক্ষা বাস্তবায়ন করছেন, স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার মতো পরিবেশ সৃষ্টি হচ্ছে, তখনই আবারো ষড়যন্ত্রকারীরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। বিভিন্ন ইস্যুতে উসকানি দিচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর আস্থা রাখুন। তার নেতৃত্বে আমরা করোনায় বড় ক্ষতি থেকে বেঁচে গেছি। আরেক টু ধৈর্য ধরলে পুরো সঙ্কটটি উতরাতে পারব। বিএনপির উদ্দেশে আমু বলেন, পায়ের নিচে মাটি না থাকলে আন্তর্জাতিক বলয়ের সাথে হাত মিলিয়ে দেশীয় ভিত কাঁপানো যায় না। আওয়ামী লীগ সরকারের শেকড় অনেক গভীরে। আদালতসহ সবক্ষেত্রে বাংলা ভাষা প্রচলনের মধ্য দিয়ে ভাষার প্রতি মর্যাদা প্রদর্শন করতে হবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা: দীপু মণি বলেন, একটি মহল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার অপচেষ্টা চলাচ্ছে। আল জাজিরাসহ নানাভাবে না পেরে এখন শিক্ষাক্ষেত্রে সে অপচেষ্টা চালাচ্ছে। কিছু চিহ্নিত ব্যক্তির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা চলছে। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে সেটা প্রতিহত করতে পারব।

আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, জাতীয় পার্টি (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহবায়ক ডা: ওয়াজেদুল ইসলাম, তরিকত ফেডারেশনের সভাপতি সৈয়দ নজিবুল বশর, গণআজাদী লীগের সভাপতি এসকে শিকদার, গণতন্ত্রী পার্টির সভাপতি ডা: শাহাদাত হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *