নবীনগরে সাংবাদিকের উপর হামলার ৭ দিন পেরিয়ে গেলেও গ্রেফতার হয়নি হামলাকারীরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে দৈনিক কালের কন্ঠের নবীনগর প্রতিনিধি ও দৈনিক প্রথম আলোর সাবেক প্রতিনিধি সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর বাড়িতে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে  হামলা করা হামলাকারীদের ৭ দিন পেরিয়ে গেলেও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি নবীনগর থানা পুলিশ।
গত ২৫ এপ্রিল দিবাগত রাতে ক্ষমতাসীন উপজেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম নজু ওরফে নজু মিয়ার ভাগ্নে বলে পরিচিত উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা দাবিকারি সুমন উদ্দিনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর বিরুদ্ধে আক্রোশ মূলক স্যাস্টাসের পরের দিন এ ঘটনাটি ঘটে।
হামলার সময় ধারনকৃত সিসি ক্যামেরার ফুটেজে স্পষ্ট দেখা যায়, উপজেলার মাঝিকাড়া গ্রামের নজরুল ইসলাম নজুর ভাই-ভাতিজা ও সমর্থক ১০-১২ জন মিলে জড়ো হতে থাকে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর বাড়ির সামনে। এক পর্যায়ে তারা ইট পাথর ছুঁড়ে মারে ও  সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর ছোট ভাই নিতাই দেবনাথের দোকানে ঢুকে গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর নাম নিয়ে শাসাতে থাকে। সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু নিজ বাড়ির দোতলায় জানালা দিয়ে তাকালে হামলাকারীরা তাকে অসভ্য ভাষায় গালাগালি করে হত্যার হুমকি দিয়ে বলে উঠে, আর একবার যদি তুই এম্পির ( এবাদুল করিম বুলবুল এমপি) বিরুদ্ধে লিখস তোর আত-পাও কাইট্টা লামু। তোরে দেইক্কা নিমু।
তাৎক্ষণিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু  থানায় ফোন দিলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু বাদী হয়ে পরের দিন সকাল বেলা (২৬/০৪/২১) নিরাপত্তা চেয়ে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে জিডি করলেও নবীনগর থানা পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি কাউকে।
ঘটনার ৭ দিন পেরিয়ে গেলেও হামলাকারীরা গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশিষ্ট জনরা।
সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু বলেন, হামলাকারীরা আমাকে হাত-পা কেটে হত্যা করার হুমকি দিলেও এখন পর্যন্ত গ্রেফতার হয়নি কেউ!
সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে তাদের স্পষ্ট দেখা গেলেও তাদের কেন গ্রেফতার করতে পারছেন না জানি না! আমি এখন কার কাছে নিরাপত্তা চাইব!
এদিকে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর বিরুদ্ধে হলুদ সাংবাদিক ও হামলাকারীরা বিভিন্ন অপ-প্রচার করছেন বলে দাবি করেন তিনি।
এ বিষয়ে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুর রশীদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও এ বিষয়ে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *