বানিয়াচংয়ে ৩ মাসের ঘুমন্ত শিশুকে হত্যার অভিযোগে মামী গ্রেফতার ॥ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বানিয়াচংয়ে ৩ মাসের ঘুমন্ত শিশু মোহাম্মদ আলীকে হত্যার অভিযোগে তার মামীকে গ্রেফতার করেছে বানিয়াচং থানা পুলিশ।

২৯ মে শনিবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজেষ্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুল হুদার আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে মৃত শিশুর আপন মামী ১নং ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম (বড়সড়ক) গ্রামের আল আমিনের স্ত্রী তুলুনা বেগম (২৫)।

বানিয়াচং থানা সুত্রে জানাযায় গত ২৭ মে বৃহস্পতিবার বাড়ীর পার্শ্ববর্তী ডুবায় ফেলে শিশুটিকে তারই মামী হত্যা করে। খবর পেয়ে ঐদিনই বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন ও তদন্ত ওসি প্রজিত কুমার দাশের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ডুবা থেকে ৩ মাসের শিশু মোহাম্মদ আলীর নিথর দেহ উদ্ধার করেন।
৮ সন্তানের হতভাগা শিশুর মা রোহেনা বেগম শোকে স্তব্ধ হয়ে পড়েছেন। শিশুর বাবা আবু ছালেহ অন্যের বাড়ীতে ১২ মাসের চুক্তিতে কাজ করেন।

তাদের নিজস্ব বলতে কোন বাড়ি ঘর ও জমি-জামা নেই। শিশুটির মা তার ভাইয়ের ঘরের পাশের একটি এক চালা ছোট ঘর ভাড়া করে অত্যন্ত কষ্টে দিনযাপন করছেন। ঘাতক মামীর এক বছরের মেয়ে শিশু অন্য দিকে মৃত শিশুর মায়ের ৮ সন্তানের মধ্যে ৪ টি ছেলে সন্তান থাকায় এবং মৃত শিশুর নানী মেয়ের ঘরের সন্তানদের বেশী আদরযত্ন করার কারন সহ পারিবারিক বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়াকে কেন্দ্র করে এ হত্যা কান্ড হয়েছে।

এব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন বলেছেন নিজস্ব সোর্স প্রযুক্তি ও প্রাথমিক তদন্তের মাধ্যমে প্রথমেই মৃত শিশুর মামী তুলুনা বেগম খুনের ঘটনায় জড়িত থাকতে পাড়ে বলে আমাদের সন্দেহ হয়। পরবর্তীতে অজ্ঞাত আসামী দিয়ে থানায় অভিযোগ দিলে আমরা তুলুনাকে জিজ্ঞাসাদ করলে সে খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *