আফগানিস্তানের ৮৫ ভাগ এলাকা দখল করে নিয়েছে তালেবান!

বাংলা কণ্ঠ ডেস্ক ‍রিপোর্ট : আফগানিস্তানের সশস্ত্র গ্রুপ তালেবান বলছে, আফগানিস্তানে ঘাঁটি গেড়ে অন্য কোনো গোষ্ঠীকে তারা প্রতিবেশী দেশে হামলা চালাতে দেবে না।

মস্কোতে রাশিয়ার সরকারের সাথে এক বৈঠকের সময় তালেবানের পক্ষে প্রধান আলোচনাকারী কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন দেলাওয়ার একথা জানিয়েছেন।

রুশ সরকার তালেবানকে আলোচনার জন্য মস্কোতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। তিনি দাবি করেন, আফগানিস্তানের ৮৫ শতাংশ এলাকা এখন তালেবানের দখলে।

তবে নিরপেক্ষ কোনো সূত্র থেকে এই দাবির সত্যতা যাচাই করা যাচ্ছে না।

আফগান সরকারের প্রশাসনিক কেন্দ্রগুলোতে হামলা না করার প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সাথে তালেবানের কোনো ধরনের চুক্তি হয়নি বলেও শাহাবুদ্দিন দেলাওয়ার দাবি করেন।

রুশ সরকার বলছে, তাজিকিস্তানের সাথে সীমান্তের দুই-তৃতীয়াংশ এলাকা এখন তালেবানের নিয়ন্ত্রণে।

ওদিকে, পশ্চিম আফগানিস্তানের সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছে, ইরানের সাথে একটি গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত স্থল বন্দর তালেবানের দখলে চলে গেছে।

এই ঘটনাকে আফগান সরকারের প্রতি একটা বড় ধরনের ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে।

একজন কাস্টমস কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ইসলাম কালা সীমান্ত বন্দরে সব ধরনের সরকারি কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। ইরানের সাথে বাণিজ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত স্থল বন্দর এই ইসলাম কালা। এই বন্দর থেকে সরকারের প্রতি মাসে দুই কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ আয় হয়।

আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই এলাকায় অবস্থানরত নিরাপত্তা বাহিনী বন্দরটি পুনর্দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে।

গত মাসে তীব্র এক লড়াইয়ের পর তালেবান তাজিকিস্তানের সাথে সীমান্তের প্রধান স্থলবন্দরটিও দখল করেছিল।
সূত্র : বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *