“বর্ষা বন্দনা” উত্তম কুমার পাল হিমেল

ওগো বৃষ্টি,
তুমি অবিরত ঝড়ে যাও
রিমঝিম ছন্দে,
ধরনী মেতে উঠে
নব বারির আনন্দে।
তব বারি ঝড়ে পড়ে
আষাঢ় ও শ্রাবনে,
কদম ও কেয়া ফুটে
 সুন্দরী কাননে।
মধুর সুরে মায়াবী গানে
উতলে উঠে চিত্ত,
শীতল ছোয়ায় শ্রাবন ধারায়
হয় যে ভুবন সিক্ত।
ওগো জলকন্যা,
তব শ্রাবনের ঝর্না ধারায়
 করে হৃদয় হরন,
মেঘের মালায় সাজিয়ে ডালি
করি তোমায় বরন।
তোমারি পরশে মৃত্তিকার ভূমি
সবুজের আল্পনায় সাজে,
শোভন সুবর্নের অপূর্ব লীলা
পুস্প পল্লবের মাঝে।
ওগো শ্রাবনী,
তোমারী রুপালী রুপের বন্যা
সুশীতল উত্তপ্ত প্রাণ,
রুক্ষ কঠিন বাধঁন থেকে
দাওগো পরিত্রান।
“বৃষ্টির ছন্দ”
উত্তম কুমার পাল হিমেল
(কবি,সাংবাদিক),নবীগঞ্জ,হবিগঞ্জ।
শুভ্র মেঘের গালিচা বিছানো
অম্ভরের বক্ষ জুড়ে,
উদাস জড়ানো ব্যাকুল চিত্তে
পাখিরা নিভৃতে উড়ে।
সাদা কালোর অপূর্ব মিশ্রনে
অভ্র পুঞ্জের ফাকে,
হেসে খেলে চমকে থমকে
রবির কিরন ডাকে।
আলো আধারের নভ মন্ডলে
গুড়ু গুড়ু ডাকে দেয়া,
বৃষ্টির মধুর মাতাল পরশে
ফুটে কদম ও কেয়া।
কচি সবুজের স্নিগ্ধ প্লাবনে
অপরুপ সাজে ধরা
দূর হয়ে যায় আছে যতসব
রুক্ষ কঠিন জরা।
বৃষ্টির রুপালী শীতল বিন্দু
প্রশান্তি বয়ে আনে,
মুখরিত তাই শোভন সুরে
বৃষ্টির জয়গানে।
লেখকঃ
উত্তম কুমার পাল হিমেল
সভাপতি,নবীগঞ্জ প্রেসক্লাব,হবিগঞ্জ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *