পরীমণির সাথে সম্পর্কের অভিযোগে পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েনকে বদলি

বাংলা কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্টঃ চিত্রনায়িকা পরীমণির সাথে সম্পর্কের অভিযোগ উঠা ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মো: গোলাম সাকলায়েনকে বদলি করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের এক আদেশে তাকে ডিবি থেকে ডিএমপির পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্টে (দাঙ্গা দমন বিভাগ, পশ্চিম) বদলি করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএমপির গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগের উপকমিশনার মো: ফারুক হোসেন। তিনি গণমাধ্যমকে জানান, বদলির আদেশের আগে সাকলায়েনকে ডিবির সব ধরনের দায়িত্ব থেকে বিরত রাখা হয়।

পরীমণির সাথে ডিবির গুলশান বিভাগের এডিসি গোলাম সাকলায়েনের ঘনিষ্ঠতা রয়েছে, এমন একটি খবর গণমাধ্যমে আসে। তার বাসায় পরীমণির যাতায়াত ছিল বলে অভিযোগ ওঠে।

জানা যায়, সাভারের বোট ক্লাবে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় দায়ের করা মামলার তদন্তের তদারকি কর্মকর্তা সাকলায়েনের সাথে সখ্য গড়ে ওঠে চিত্রনায়িকা পরীমণির। সেই কারণে ওই পুলিশ কর্মকর্তার বাসায় একাধিকবার যাতায়াতও করেছেন পরীমণি। এছাড়া তারা বিভিন্ন সময় গাড়িতে করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাফেরাও করেছেন।

সাকলায়েনের বাসায় পরীমণির যাওয়ার বিষয়টি একটি সিসিটিভি ফুটেজে উঠে এসেছে। ছড়িয়ে পড়া ফুটেজটিতে দেখা যায়, ১ আগস্ট সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে পরীমণি সাদা রংয়ের হ্যারিয়ার গাড়ি (ঢাকা মেট্রো-ঘ ১৫ ৯৬ ৫৩) নিয়ে গোলাম সাকলায়েনের রাজারবাগের অফিসার্স কলোনির মধুমতি ভবনের ৯/সি নম্বর সরকারি ফ্ল্যাটে আসেন। প্রথমে সেই গাড়ি থেকে লাল রংয়ের টি-শার্ট পরে বের হন সাকলায়েন। সাদা রংয়ের একটি স্লিপিং গাউন পরে নামেন নায়িকা পরীমণি। সেই রাতে সোয়া ২টায় ওই ভবন থেকে বের হন পরীমণি। তবে রাতে বের হওয়ার সময় পরীমণির পরনে ছিল কালো রংয়ের পোশাক, আর সাকলায়েনের গায়ে সাদা টি-শার্ট।

এরপর আর বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশ হয়।

এর মধ্যেই আজ শনিবার দুপুরে সাকলায়েনকে বদলির আদেশ এলো।

যদিও সাকলায়েন তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি গণমাধ্যমকে বলেছেন, পরীমণির করা মামলার তদন্ত তদারক কর্মকর্তা হিসেবে তাকে পরীমণি ফোন করেছিলেন। তার বাসায় পরীমণির যাতায়াত ছিল না এবং তার সাথে সম্পর্কও নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *