আনন্দঘন পরিবেশে বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের আনন্দ ভ্রমণ

বদরুল আলম আনসারী/রিয়াদ আল আসাদ, বানিয়াচং(হবিগঞ্জ) ॥ শত কর্মব্যস্ততা থেকে নিজেদের কিছুটা প্রশান্তি দিতে এবং প্রকৃতির সাথে নিজেদের অবগাহন করাতে ১৯৮৪ সালে প্রতিষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্যরা প্রতি বছরের ন্যায় এবারো আনন্দ ভ্রমণ উদযাপন করেছেন।

৩০ আগস্ট সোমবার সকাল থেকে রাত ১০ ঘটিকা পর্যন্ত এই আনন্দ ভ্রমণ শেষে সকলে নিরাপদে নিজনিজ কর্মস্থল বানিয়াচং এসে পৌঁছেছেন।

প্রেসক্লাব সভাপতি এস এম খোকন’র নেতৃত্বে বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ সড়কে সদস্যবৃন্দের একাংশ।

বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি এস এম খোকন’র নেতৃত্বে হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং, জলসুখা, আজমিরীগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা, মিঠামইন, অষ্টগ্রামসহ বেশ ক’টি পর্যটন স্পট ভ্রমণ করেন বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাব সদস্যরা।

এই আনন্দ ভ্রমণে প্রেসক্লাবের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সদস্য অংশ নেন। ২৪ জন সদস্যের বহর নিয়ে ভ্রমণে আসেন প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ। বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা ও হবিগঞ্জ জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মুফতি মাওলানা আতাউর রহমান, বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান কাজল,যুগ্ম-সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত মিল্টন, সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নাসিম, অর্থ সম্পাদক উমর ফারক শাবুল,

প্রেসক্লাব সভাপতি এস এম খোকন’র নেতৃত্বে বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ থানার সামনে সদস্যবৃন্দের একাংশ।

প্রচার সম্পাদক এস এম খলিলুর রহমান রাজু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা রিয়াদ আল আসাদ,সমাজকল্যণ সম্পাদক মাওলানা বদরুল আলম আনসারী, প্রেসক্লাব সদস্য এস এম সাইফুল ইসলাম সেলিম, শেখ যোবায়ের আহমদ, ইমরান আহমদ উসমানী, আরিফুল রেজা, তফসির মিয়া,আব্দুর রউফ আশরাফসহ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ।

মহামান্য রাষ্ট্রপতির বাংলোর সামনে বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের একাংশ।

এছাড়াও শুভাকাঙ্কিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী রায়হান উদ্দিন ও সাদ্দাম হোসেন, ব্যবসায়ী, ইবাদুল বিশ্বাস ও সুবেল মিয়া। সোমবার ভোরে আনন্দ ভ্রমনের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করার কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে কিছুটা বিলম্ব হয়ে যায়। সকাল ১১ ঘটিকায় উপজেলা প্রেসক্লাব কার্যালয় থেকে মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে শুরু হয় আনন্দ ভ্রমনের যাত্রা। বানিয়াচং আজমিরীগঞ্জ সড়কের দু’পাশে বর্ষার পানিসহ প্রাকৃতিক ভাবে জন্ম নেয়া গাছগাছালীর বেষ্টনী দেখলে মনে হয় দুইদিকে সাগর এবং সড়কে সবুজের সমারোহ।

কিশোরগঞ্জের মিঠামইন এলাকার একটি ব্রিজে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের একাংশ।

এই পরিবেশ যেকোন পর্যটকের মনকেড়ে নেবে। বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্যরাও ব্যতিক্রম নয়। মোটর সাইকেল থামিয়ে সবাই আটকে পড়েন। প্রায় আধাঘন্টা ঘুড়াঘুড়ির পরে আবারো মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে আজমিরীগঞ্জ থানা চত্তরে যাওয়ার পরে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার আমন্ত্রণে চা বিরতি। পরবর্তীতে দুইটি নৌকাযোগে যাওয়া হয় ইটনা গোদারাঘাট ।

আনন্দ ভ্রমনের এক পর্বে ঘোড়ার পিঠে প্রেসক্লাব সভাপতি এস এম খোকন।

সেখান থেকে মোটর সাইকেল ও অটোযোগে বিকাল ৩ টার দিকে মহামান্য রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ এডভোকেট’র গ্রামেরবাড়ী কিশোরগঞ্জ জেলার মিটামইন উপজেলার কামালপুর গ্রামে পৌঁছেন। এখানে কাঁচালঙ্কা রেষ্টুরেন্টে দুপুরের খাবার শেষে এখানকার দর্শনীয় স্পট গুলো সবাই ঘুরে দেখেন এবং আনন্দ উল্লাস করেন।

বানিয়াচং উপজেলা প্রেসক্লাবের এই বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশে সফলতার সাথে সম্পন্ন হওয়ায় আনন্দ ভ্রমণে অংশ গ্রহণকারী সকলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম খোকন, সাধারণ সম্পাদক কমরুল হাসান কাজলসহ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *